দুই শিল্পীর শ্রদ্ধাঞ্জলিতে মঞ্চে বাংলার তিন সঙ্গীত শিল্পী

এই বছরেই আমরা হারিয়েছি আমাদের দুই প্রিয় সঙ্গীত শিল্পী শ্রদ্ধেয়া লতা মঙ্গেশকর ও সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়কে । গানে গানে তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে গত ১৩ নভেম্বর আয়োজন করা হয়েছিল এক বিশেষ শ্রদ্ধাঞ্জলি অনুষ্ঠানের । উত্তম মঞ্চে “গানের ভুবনে সন্ধ্যা-লতায় প্রাণের আলোতে” নামক এই সান্ধ্য সঙ্গীতানুষ্ঠানের প্রধান তিন শিল্পী ছিলেন খ্যাতনামা সঙ্গীত শিল্পী শ্রীরাধা বন্দোপাধ্যায়, শম্পা কুণ্ডু এবং দেবারতি দাশগুপ্ত সরকার ।

অনুষ্ঠানের প্রথম শিল্পী শম্পা কুণ্ডু সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের বেশ জনপ্রিয় কিছু গানের সঙ্গে লতা মঙ্গেশকরেরও কয়েকটি গান পরিবেশন করেন । পরবর্তী শিল্পী ছিলেন দেবারতি দাশগুপ্ত সরকার যিনি এই প্রজন্মের একজন জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী । তিনি লতা মঙ্গেশকরের গাওয়া হিন্দি ও বাংলা গানের ভাণ্ডার থেকে বেশ কয়েকটি গান শোনালেন দর্শক শ্রোতাদের । তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য “সিলসিলা”, “কবিতা” ও “আঁধি” সিনেমার গান । এছাড়াও দেবারতি দর্শকদের অনুরোধে গাইলেন সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের কয়েকটি গান । সঙ্গীত পরিবেশন ও উপস্থাপনার কারণে তিনি সহজেই দর্শকদের মন জয় করে নেন । অনুষ্ঠানের শেষ শিল্পী শ্রীরাধা বন্দোপাধ্যায় ছিলেন এই সান্ধ্য অনুষ্ঠানের প্রধান আকর্ষণ । তিনিও লতা মঙ্গেশকর ও সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের গাওয়া বেশ কিছু গান দর্শকদের শোনালেন ।

অনুষ্ঠান মঞ্চে উপস্থিত তিন শিল্পীর গানের মধ্যে দিয়েই দর্শক শ্রোতারা উপলব্ধি করলেন ফেলে আসা স্বর্ণযুগকে । এই অনুষ্ঠানের আয়োজক ছিলেন তন্ময় কর ও সংযোজনায় ছিলেন মৌনীতা চট্টোপাধ্যায় । হালকা ঠাণ্ডার আমেজে রবিবারের সন্ধ্যায় এক অন্যরকম অনুষ্ঠানের সাক্ষী থাকলো শহর কলকাতা ।